|

২০২১ সেরা দুঃখের কবিতা | Bangla Sad kobita

দুঃখের কবিতা

দুঃখের কবিতা এটা তোমাদের মনেটা কষ্ট হালকা করা যায় তার জন্য। আমাদের জীবনের নানা রকমের কষ্ট তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসা ব্রেকআপের দুঃখ আমাদের দুঃখ গুলিকে আমার মনে মাঝে চেপে ধরে রাখি তাই আরও দুঃখ পায়। এই দুঃখকে দুর করার জন্য আমার তোমাদের সাথে দুঃখের কবিতা শেয়ার করলাম যা তোমরা দুঃখের কবিতা লাইন গুলো কফি করে ফেসবুক শেয়ার করো মনটা হালকা হবে।

দুঃখের কবিতা

সে তুমি যাকে আমি ভালোবেসেছিলাম,
সে তুমি যার অনেক কাছে এসেছিলাম ।
আজ তুমি নেই বলে ভালোবাসাও নেই,
আমি হয়ে গেলাম আগের মত যেই সেই ।

কেন কি কারণে তুমি মোরে ভুলে গেলে,
চিরতরে হারিয়ে গেলে মোরে একা ফেলে ।
সারাটা জীবনই মোর থাকতে হবে একা,
হয় তো কোন দিনও আর হবে না দেখা ।

আর তাতে তোমারই বা কি আসে যায়,
জীবনে মানুষ যা চায় তা কি কভু পায় ?
হারিয়ে গেছো পৃথিবীর জনপদের ভীরে,
তোমার চারপাশে স্মৃতিসব আছে ঘিরে ।

বুকের মাঝে স্মৃতি জমা আছে অবশেষ,
তোমাতে আমার অসহায় দৃষ্টি অনিমেষ ।
দু:খ বিনা বাকি নেই সুখের কোন লেশ,
তোমার বিহণে আমিতো হয়ে গেছি শেষ ।


দূর থেকে সরে-
আর কত দূরে..
গেলে,বল তো পৌঁছানো যায়,
তোমার ভালোথাকার ঠিকানায়?
তুমি তো ছিলে
আকাশের নীলে-
ছিলে, রাতের নিরব জোছনায়
ছিলে, আমার না লেখা কবিতায়।
শুনে যে কোন আহ্বান,
তুমি যে দিয়েছ উড়ান

বল কিভাবে পৌঁছানো যায়

নীড় হারা পাখির ঠিকানায় ?
আকাশের তারা মাঝে-
তোমায় বেড়াই খুঁজে..
বল,ওগো,আলোরই নিশানা-
বল, হারানোদের কি ঠিকানা?

খুঁজব তাকে, দেখব একটি বার,
কত সুখে আছে সে পাখি আমার!

দুঃখের কবিতা

কথা ছিলো দেখা হবে
হলোনা আর দেখা,
সুখের রাজ্যে চলে গেলে
আমায় রেখে একা।
যওনি বলে ভালোবাসায়
কি ছিলো মোর অপরাধ
শুধুশুধু দিয়ে গেলে মিথ্যে প্রেমের অপবাদ।
নিনদুকের ওই নিন্দা কথায়
ভঙে দিলে আমার হৃদয়,
কেমন করে জানালে আমায়
চলে যাচ্ছি বন্ধু বিদায়।
হয়তো কবু হবে না আর
তোমার আমার দেখা,
ক্ষমাটুকু করে দিও
চলে যাচ্ছি একা।
যাবার বেলায় দেবার মতো
কিছুই আমার নাই
চলে যাচ্ছি চলে যাচ্ছি গুড বাই গুড বাই।


কেউ যদি আমাকে প্রশ্ন করে, সুখ কি?
আমি হয়তো সঠিক উত্তর দিতে পারবো না।
কেউ যদি আমায় প্রশ্ন করে, দুঃখ কি?
বলবো আমি খানিক হেসে,
সেতো আমার আপনজন, নিত্যদিনের সাথী।

আমি দুঃখকে আপন পেয়েছি,
যখন আমার বয়স ছিলো, নয় কিংবা দশ,
বাবাকে হারিয়ে ছিলাম তখন অকালে,
বঞ্চিত হয়েছিলাম চিরতরে পিতার স্নেহ থেকে।

আমি দুঃখকে পেয়েছি,
যখন অভাব-অনটনে থাকতে হয়েছিল অনাহারে তখন।

আমি দুঃখকে পেয়েছি,
যখন অর্থাভাবে বন্দ হয়ে যেতে বসেছিলো আমার লেখা-পড়া,
অভাবের আগুনে পুড়ছিল আমার উচ্চশিক্ষা লাভের স্বপ্ন তখন।

আজ যখন মন থেকে,
সকল দুঃখ স্মৃতি মুছে ফেলে,
সুন্দর জিবনের স্বপ্ন দেখছি,
তখন দুঃখ স্মৃতি উকি মারে মন মাঝে।
ভাঙতে চায় আমার সাজানো স্বপ্ন।

এমনি করেই কি জিবন যাবে?
ভাবছি অবিরত,
দুঃখ আর আমি সইবো কত।
পাবো না কি সুখের ছোঁয়া এ জিবনে,
জানবো না কি কভু আমি সুখের মানে।


হঠাৎ এসেছিলে চোখের আলোতে
হারিয়ে ফেলেছি এক ঝলকে
তবুও তুমি ছিলে চোখের কোণে
আগলে রেখেছি বড় যতনে

ভালোবেসেছি তোমাকে প্রথম
চোখের আলোতে এসেছ যখন
ছিলে হৃদয় জুড়ে প্রতিক্ষণে
ভালবাসা তো হয়না মনের বিপরীতে।

এটাই কি প্রণয়ের অনুভূতি??
তাই কতটা পথ খুঁজে ফিরে এসেছি।
হঠাৎ তোমার ছায়ায় আহ্বান
তাই ভুলে গেছি যা পিছুটান

ভালোবেসেছি তোমাকে প্রথম
চোখের আলোতে এসেছ যখন
ছিলে হৃদয় জুড়ে প্রতিক্ষণে
ভালবাসা তো হয়না মনের বিপরীতে।

মাঝে মাঝে তোমাকে বুঝিনা কেন?
তোমায় ঘিরে যে কত বেদনা
এসো না তুমি আঁধার ভুলে আলোতে
জড়িয়ে নিবো মায়ার চাদরে

ভালোবেসেছি তোমাকে প্রথম
চোখের আলোতে এসেছ যখন
ছিলে হৃদয় জুড়ে প্রতিক্ষণে।
ভালবাসা তো হয়না মনের বিপরীতে!


এখন অনেক রাত
কোথাও কেউ জেগে নেই
আখি যুগলে নেই ঘুমের ছায়া,
ঘুম যেন অভিমান করেছে
আজ আর দেখা মিলবে না,
র্নিঘুমে কেটে যাবে সারাটি রাত।
কারন শুধু একটাই
আজ তুমি পাশে নেই।
তাই বসে পরলাম, ডায়েরীটা নিয়ে
তোমাকে নিয়ে লিখবো কবিতা
গান আর ছন্দের কল্পকথা।
কলমটা একটুও কালি দিচ্ছেনা আমায়,
ও যেন আজ রেগে আছে ।
কারন শুধু একটাই
তুমি পাশে নেই বলে।
দক্ষিনের জানালা খুলে দিয়েছি
দেখবো চাঁদের মায়বী মুখ।
চাঁদটা যেন বারবার
তোমার রুপের কাছে হার মানছে
আর লজ্জায় লুকাচ্ছে মেঘের আড়ালে।
এ দৃশ্য দেখে,
আমার হৃদয়ে আনন্দের জোয়ার বইছে
তবে এই জোয়ারের কোনই মূল্য নেই।
কারন শুধু একটাই
আজ তুমি পাশে নেই।


শিখেগেছি আমি থাকতে একা,
শিখেগেছি থাকতে তোর সাথে না করে দেখা
শিখেগেছি তোর সাথে কথা না বলে থাকতে,
শিখেগেছি নিরবে এই মনে তোকে রাখতে

তোমাদের যদি এই দুঃখের কবিতা পছন্দ হয় তবে অনুগ্রহ করে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ বা টুইটারে তোমার বন্ধুদের এবং প্রিয়জনদের সাথে ভাগ করে নেওয়ার জন্য আমাদের প্রচেষ্টার প্রশংসা করুন। আর কমেন্ট করে জানিও।

আরো পড়ুন:-

Similar Posts